ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলা পাকহানাদার মুক্ত দিবস পালিত - অনলাইন দৈনিক সমবাদ,সত্য সংবাদ প্রকাশে ২৪ঘন্টা,True News publish the 24 hours "Online Daily Samobad"

শিরোনাম

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Friday, November 23, 2018

ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলা পাকহানাদার মুক্ত দিবস পালিত

ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ ২৩ নভেম্বর। ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার পাকহানাদার মুক্ত দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে বরিশাল অঞ্চলের মধ্যে সর্বপ্রথম রাজাপুর থানা পাক হানাদার মুক্ত হয়। বৃহত্তর বরিশালের মধ্যে রাজাপুরে সর্ব প্রথম স্বাধীন বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। ২২ নভেম্বর দিবাগত রাতে মুক্তিযোদ্ধারা রাজাপুর থানায় আক্রমন চালালে শুরু হয় সম্মুখ যুদ্ধ। পরের দিন ২৩ নভেম্বর সকাল ১০টা পর্যন্ত যুদ্ধ চলে। ২জন মুক্তিযোদ্ধা শহীদ হন এযুদ্ধে। আহত হন কমপক্ষে ২০জন মুক্তিযোদ্ধা। এ দিনের যুদ্ধে কমপক্ষে ৩’শ মুক্তিযোদ্ধা অংশ নেন।
রাজাপুর মুক্ত দিবস উপলক্ষে রাজাপুর প্রেসক্লাব প্রতি বছরের ন্যায় এবছরও দিনব্যাপি নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।
এদিবস উপলক্ষে প্রেসক্লাব সভা কক্ষে সকাল ১০টায় আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আফরোজা বেগম পারুল।বিশেষ অতিথি ছিলেন রাজাপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ জাহিদ হোসেন।
রাজাপুর প্রেসক্লাব সভাপতি আহসান হাবিব সোহাগের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন প্রেসক্লাব প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আবদুল বারেক বারেক ফরাজী, সদস্য মোঃ ফকরুল ইসলাম খান, বীর মুক্তিযোদ্ধা সাবেক প্রাধান শিক্ষক নুর হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা আলতাফ হোসেন, মীর মুনসুর আহম্মেদ, প্রেসক্লাব আজীবন সদস্য নিত্যানন্দ সাহা, প্রেসক্লাব সদস্য মোঃ আরিফুর রহমান রনি,  মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডে পক্ষে মোঃ জালাল আহম্মেদ প্রমূখ। আলোচনা সভা শেষে মুক্তিযুদ্ধে যারা শহিদ হয়েছেন তাদের আত্মার মাগফিরাত কারনা করে দোয় অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। পরে দুপুর ১২টায় প্রেসক্লাব চত্বর থেকে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রটি উপজেলার প্রধান প্রধান সগক প্রদক্ষি করে। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন রাজাপুর প্রেসক্লাব সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ এনামুল হোসেন খান ও কার্যনির্বাহী সদস্য আবু সায়েম আকন।

Post a Comment

Post Bottom Ad

Pages