রাজাপুরে স্কুলছাত্রীকে পরীক্ষা দিতে দেয়নি কর্তৃপক্ষ - অনলাইন দৈনিক সমবাদ,সত্য সংবাদ প্রকাশে ২৪ঘন্টা,True News publish the 24 hours "Online Daily Samobad"

শিরোনাম

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Monday, October 01, 2018

রাজাপুরে স্কুলছাত্রীকে পরীক্ষা দিতে দেয়নি কর্তৃপক্ষ

এম খাইরুল ইসলাম পলাশ,নিজস্ব প্রতিবেদক: ঝালকাঠির রাজাপুরে বড়ইয়া বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেনির (রোল-১৮) এক ছাত্রীকে টেস্ট (বাছনিক) পরীক্ষায় অংশ নিতে দেয়নি কর্র্তৃপক্ষ। ১ অক্টোবর সোমবার সকালে পরীক্ষা দেয়ার জন্য স্বপ্না আক্তার নামে মেধাবী ওই ছাত্রী বিদ্যালয়ে উপস্থিত হলে প্রধান শিক্ষক মো. নাসির উদ্দিন তাঁকে পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করতে বাধা দেয়। স্বপ্না বড়ইয়া ইউনিয়নের পালট গ্রামের মো. ইকবাল হাওলাদারের মেয়ে।
পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করতে না পেরে ওই ছাত্রী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ও নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।
স্বপ্না আক্তার অভিযোগ করে বলেন, ‘আমাদের ইউনিয়নের অন্য একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে আমার ছোট বোন রিপা আক্তার সপ্তম শ্রেনিতে পড়ে। ওই বোনকে আমার বিদ্যালয়ে (বড়ইয়া বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়) ভর্তি করার জন্য আগে থেকেই চাপ দিয়ে আসছিল আমার বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. নাসির উদ্দিন। কিন্তু বোনকে আমার বিদ্যালয়ে ভর্তি না করায় আমাকে পরীক্ষা দিতে দেয়নি। শুধু তাই নয়, আসন্ন এসএসসি পরীক্ষায় আমাকে ফরম ফিলাপ করতে দেয়া হবে না বলে হুমকী দেয়া হয়েছে।’
স্বপ্না আক্তার আরো বলেন, ‘আমি পরীক্ষা দিতে চাই। যে বিদ্যালয়ে আমি দির্ঘ সময় পড়ালেখা করেছি সেই বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে এমন আচরন দু:খ জনক। আমার শিক্ষা জীবন রক্ষা করতে প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানাই।’ এসময় কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন স্বপ্না আক্তার।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বড়ইয়া বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. নাসির উদ্দিন বলেন, ‘আমরা কাউকে আমাদের বিদ্যালয়ে ভর্তি করানোর জন্য চাপ দেইনি। ওই ছাত্রী নিয়মিত বিদ্যালয়ে না আসার কারনে তাঁকে পরীক্ষায় অংশ নিতে দেয়া হয়নি।’ 
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আফরোজা বেগম পারুল বলেন, ‘অভিযোগ পেয়েই প্রধান শিক্ষকের সাথে কথা বলেছি। আজকের পরীক্ষা পরবর্তীতে নেয়া হবে এবং আগামী দিন থেকে সে নিয়মিত পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করবে বলে নির্দেশ দিয়েছি।




 
Post a Comment

Post Bottom Ad

Pages