আরবীতে আল্লাহু লেখায় শিক্ষকের বেত্রাঘাত, শিক্ষার্থীদের ক্লাশ বর্জন ! - অনলাইন দৈনিক সমবাদ,সত্য সংবাদ প্রকাশে ২৪ঘন্টা,True News publish the 24 hours "Online Daily Samobad"

শিরোনাম

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Sunday, August 12, 2018

আরবীতে আল্লাহু লেখায় শিক্ষকের বেত্রাঘাত, শিক্ষার্থীদের ক্লাশ বর্জন !

এম খাইরুল ইসলাম পলাশ,নিজস্ব প্রতিবেদকঃঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার শুক্তাঘর ইউনিয়নের কেওতা ঘিগড়া সিনিয়র মাদ্রাসার সহকারি শিক্ষক সত্যজিৎ মাতুব্বর’র বিচারের দাবীতে কোমলমতি শিক্ষার্থীরা ক্লাশ বর্জন করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

১২ আগষ্ট রবিবার দুপুরে সাংবাদিকরা সরেজমিনে  গেলে শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে বলেন, আমাদের প্রতিষ্ঠানের পঞ্চম শ্রেনির শিশু শিক্ষার্থীরা আরবীতে আল্লাহু শব্দটি বড় অক্ষরে লিখে ক্লাশ রুমের দেয়ালে লাগিয়ে রাখলে ঐ শিক্ষক ক্লাশ নিতে গিয়ে আল্লাহু শব্দটি লাগানো দেখে শিক্ষার্থীদের দার করিয়ে এসব লিখছো কেন বলেই তাহাদেরকে বেত্রাঘাত করে।

মাদ্রাসার পঞ্চম শ্রেনীর শিক্ষার্থীদের কাছে জানতে চাইলে তারা বলেন, আমরা ক্লাশ রুমে বড় অক্ষরে আল্লাহু শব্দটি লিখে দেয়ালে লাগিয়ে রাখি তা অন্য শিক্ষকরা দেখে কিছু বলেননি কিন্তু আমাদের সত্যজিৎ স্যারে এটা দেখেই আমাদেরকে জিজ্ঞাসা করে এবং আল্লাহু শব্দটির উপরে বেত দিয়ে খুচিয়ে বলে এটা লিখছো কি, কেন লিখছো যারা লিখছো তারা দারাও। আমরা দারালেই আমাদের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে আমাদেরকে ৪টি করে বেত দিয়ে পিঠান দেয়।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত শিক্ষক সত্যজিৎ মাতুব্বরের কাছে জানতে চাইলে তিনি বিষয়টি অস্বিকার করে বলেন ওরা ক্লাশ রুমে নোংরা করে সেই কারনে আমি শুধু দুএকটি চড় থাপ্পড় দিয়ে ওদের ভিতরে ভয়ভিতি তৈরি করেছি। এছাড়া আরও যদি কিছু করে থাকি তাহলে আমার পিন্সিপাল আছে তা সেই দেখবে। 

মাদ্রাসার অধ্যক্ষ বলেন “আমি বিষয়টি শুনেছি এবং শিক্ষার্থীরা আমার কাছে এলে আমি তাদেরকে শান্ত করে ক্লাশে ফিরে যেতে বলেছি আর এ বিষয়ের সত্যতা পেলে আমি আইনানুগ ব্যবস্থা নিব।

এ বিষয়ে উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা আফরোজা বেগম পারুল জানান, বিষয়টি শুনে আমি উপজেলা একাডেমিক সুপার ভাইজারকে ঐ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠিয়েছি। আমি প্রতিষ্ঠানের পিন্সিপালের সাথে কথা বলেছি এবং এ বিষয়ে নিয়ে ইতিমধ্যে একটি মিটিংও হয়েছে।
Post a Comment

Post Bottom Ad

Pages