বিএনপিতে ‘ভাটার টান’ দেখছেন কাদের - অনলাইন দৈনিক সমবাদ,সত্য সংবাদ প্রকাশে ২৪ঘন্টা,True News publish the 24 hours "Online Daily Samobad"

শিরোনাম

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Friday, July 20, 2018

বিএনপিতে ‘ভাটার টান’ দেখছেন কাদের

www.samobad.com :: সমবাদ ডট কম ॥ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আগামী জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপির সঙ্গে নির্বাচনের বিষয়ে সংলাপের কোনো প্রয়োজন নেই।‘দেশের ৮০ ভাগ মানুষ বিএনপির নেতিবাচক রাজনীতিকে ঘৃণা করে। যারা ঘৃণা করে তারা তাদের ভোট দেবে?’
শুক্রবার (২০জুলাই) রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ‘গণসংবর্ধনা’ উপলক্ষে এক চিত্রকর্ম প্রদর্শনী উদ্বোধন করেন কাদের। এসময় তিনি এসব কথা বলেন।
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল অলম হানিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, এ কে এম এনামুল হক শামীম, দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য মির্জা আজম, এস এম কামাল হোসেন প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
শনিবার (২১জুলাই) এই উদ্যানেই দলীয় সভাপতিকে সংবর্ধনা দেবে আওয়ামী লীগ। মধ্যম আয়ের দেশে উত্তরণের প্রাথমিক যোগ্যতা অর্জন, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণসহ নানা সাফল্যের স্বীকৃতি হিসেবে এই আয়োজন করেছে ক্ষমতাসীন দল।
গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে কাদেরের আলোচনায় প্রাধান্য পেল আগামী জাতীয় নির্বাচন প্রসঙ্গ। আগের দিনও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জার্মান পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনায় বসেছেন, আগামী জাতীয় নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক হবে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে কাদের বলেন, ‘সব দলের অংশগ্রহণে নির্বাচন আমরা চাই না এ কথা কি আমরা বলছি? তবে আমরা কাউকে টেনে আনব না।’‘সব গণতান্ত্রিক দেশে রাজনৈতিক দলগুলো নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে এটা তাদের রাজনৈতিক অধিকার, এটা করুণা নয়। করুণা বা দয়ায় কেন বিএনপি নির্বাচনে আসবে? এটা তাদের অধিকার।’
আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে সংলাপের দাবি করছে বিএনপি। তবে রাজি নয় আওয়ামী লীগ। দলের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘সংলাপ কেন? কী প্রয়োজনে? নির্বাচন হতে তো কোনো সমস্যা নেই। তারা কী চায়? নির্বাচনে জেতার গ্যারান্টি দিতে হবে? তাহলে তারা নির্বাচনে আসবে? এটা তো কেউ দিতে পারবে না।’
নির্বাচন কমিশন নিয়ে বিএনপির সমালোচনার জবাবে কাদের বলেন, ‘তারা কি জাতীয়তাবাদী নির্বাচন কমিশন চায়? তাদের প্রতিনিধি তো নির্বাচন কমিশনে আছে।’
তবে নির্বাচন কমিশনে বিএনপির প্রতিনিধি কে, সেটি বলেননি ক্ষমতাসীন দলের নেতা।
বিএনপিতে ‘ভাটার টান’ দেখছেন কাদের। বলেন, ‘তারা শুধু শুধু আজকে বলার জন্য বলছে। আমি আবারও বলছি বিএনপির রাজনীতিতে এখন ভাটা চলছে, এ ভাটা কবে যে জোয়ার হবে এটা আল্লাহই জানেন।’ ‘আমাদের এক সময় ভাটা ছিল। রাজনীতিতে কখনও জোয়ার কখনও ভাটা থাকে। বাংলাদেশের রাজনীতিতে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করার পর ২১ বছর আমরা ভাটাতে ছিলাম। আবার যখন বিএনপি ক্ষমতায় ছিল তখনও এক ভয়াল পরিস্থিতিতে ভাটায় ছিলাম। তত্ত্বাধায়ক সরকারের সময়ও।’
এখন রাজনীতিতে জোয়ার আওয়ামী লীগের পক্ষে দেখছেন কাদের। আশা করছেন আগামী নির্বাচনেও এটার সুফল পাবেন তরা। ‘এ জোয়ার আগামী নির্বাচনে জনগণের ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটবে এবং আগামী নির্বাচনে আবারও আওয়ামী লীগ এই জোয়ারে ভাসবে।’
শেখ হাসিনাকে ‘গণসংবর্ধনা’র বিষয়ে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, ‘আজকে রাজনীতিতে আমরা ক্ষমতায় এসে উন্নয়ন করতে পেরেছি, অর্জন করতে পেরেছি যা দেশে-বিদেশে সমাদৃত হচ্ছে, প্রশংসিত হচ্ছে এবং এ উন্নয়ন অর্জন মাত্র কয়েক বছরে এটা একটা বিশ্ব রেকর্ড স্থাপন করেছে। বাংলাদেশে এ সময়ে এ অর্জন প্রবৃদ্ধি সব বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য অর্জিত হয়েছে।’
‘এটা তো অভূতপূর্ব সাফল্য। সে কারণে এ সংবর্ধনা। কৃতজ্ঞ জাতির পক্ষ থেকে আমরা স্বাধীনতা সংগ্রামের নেতৃত্বদানকারী জাতির জনকের কন্যাকে সংবর্ধনা দিচ্ছি। আর লোক সমাগমের বিষয়টা আপনাদের ক্যমেরাই বলে দেবে।’
তিনিবলেন, ‘বিএনপির মধ্যে প্রতিযোগিতা হচ্ছে কে বেশি সরকারবিরোধী কথা বলতে পারে। কে বেশি সরকারবিরোধী আক্রমণাত্মক, বিদ্বেষ-প্রসূত কথা বলতে পারে, কে বেশি নেতিবাচক কথা বলতে পারে। সেটার ওপরই হাইকমান্ডের এসিআরের বিষয় আছে। এখন সেখানে প্রতিযোগিতা হচ্ছে হাইকমান্ডকে খুশি করার জন্য সরকারবিরোধী বক্তব্য দেয়া।’
Post a Comment

Post Bottom Ad

Pages