রাজাপুরে মামলা দিয়ে মসজিদ নির্মানে বাঁধা দেয়ার অভিযোগ। - অনলাইন দৈনিক সমবাদ,সত্য সংবাদ প্রকাশে ২৪ঘন্টা,True News publish the 24 hours "Online Daily Samobad"

শিরোনাম

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Tuesday, October 17, 2017

রাজাপুরে মামলা দিয়ে মসজিদ নির্মানে বাঁধা দেয়ার অভিযোগ।



এম খাইরুল ইসলাম পলাশ:: ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার বড়ইয়া ইউনিয়নে নির্মানাধীন মসজিদের কাজে মামলা দিয়ে বাধা প্রধানের অভিযোগ উঠেছে রাজাপুর থানার ৭২নং বড়ইয়া মৌজার এস ৭০১নং খতিয়ান ভুক্ত এস, ৩৩০২ নং দাগের রেকর্ডীয় মালিকগনের ওয়ারিশগন ‘‘দক্ষিন পশ্চিম বড়ইয়া বায়তুন নূর জামে মসজিদে০৩ শতাংশ সম্পত্তি ওয়াক্ফ নাদাবী মুক্তিপত্র দেন এলাকার মুসল্লিগন একাত্রহয়ে ওই স্থানে পাকা বিল্ডিং করার জন্য২০১৫ ইং সালে কমিটি গঠন করেনওই কমিটিতে মামলার বাদী :মান্নান একজন সদস্য থেকে কমিটির রেজুলেশন বহিতে স্বাক্ষর করেনবর্তমানে :মান্নান চৌকিদারদক্ষিন বাইতুন নূর জামে মসজিদসম্পুন্ন বাদ দিয়ে  আরজুল্লা চৌকিদার বাড়ী জামে মসজিদ নামে নাম করন করতে চাচ্ছেএবং তফছিল ভুক্ত ৩৩০২ দাগের সম্পত্তি এস,এ৩১৮৪ নং দাগের সম্পত্তি এওয়াজ সূত্রে দাবি করেনপ্রকৃত পক্ষে ৩১৮৪ দাগের কোন মালিকানা স্বত্ত্ববাদীর দাদা আরজুল্লা চৌকিদারের ছিলনা বলে মামলারবাদী মো::মান্নান চৌকিদারের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন মসজিদ কমিটির সভাপতি মো:শাহ আলম খাঁন সদস্য মো: আশ্রাব আলী খাঁন                                                                                         তারা আরো বলেন ,মসজিদের কাজ এর অংশ শেষ হওয়ার কমিটির কিছু সদস্য নামকরন পরিবর্তনের জন্য ওঠে পরে লাগে মসজিদ কমিটির রেজুলিউশন বহিতে ১৫ সদ্যসের স্বাক্ষরিত এজেন্টা মসজিদটির নাম বাইতান-নূর-জামে মসজিদ আমরা ইতি মধ্যে মসজিদের কাজের তিন এর দুই অংশ কমপ্লিট করেছি তাতে আমাদের খরচ হয়েছে প্রায় পোনে তিন লক্ষ টাকাওই টাকার মধ্যে মামলার বাদীর মাত্র ত্রিশ হাজার টাকা আছে                                                                                 ওই সদস্যরা মসজিদের কাজ বন্ধের জন্য বাধা দিলেও কমিটির অন্য সদস্যরা কাজ চালিয়ে যায় তখন ওই কুচত্রিু মহলটি মোকাম বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেন যার এম,পি,নং ৪৫৮/২০১৭ (রাজা) ফৌ:কা:বি:১৪৪/১৪৫ ধারা                                                                বাদী তার মামলায় উল্লেখ করেন, বিবাদীরা পরবিত্ত লোভী তাই দখলীয় সম্পত্তি জোড় পূর্বক আতœসাৎ করার জন্য ব্যক্তি মালিকানা সম্পত্তিতে সরকারী সম্পত্তি বা অন্য কোন মিথ্যা প্রভাকন্ডা প্রচার করে                                                                                                  
একই গ্রামের ধর্মপ্রান মুসল্লি মো:মজিদ মাষ্টার(৬০),মো::রহিম (৬৫),মো:ফরিদ খান(৬২)তারা সবাই জোরদাবি জানিয়ে বলেন আমাদের এই বাইতুন নূর জামে মসজিদটি যাতে সম্পুর্ন ভাবে নির্মান করতে পারি এবং প্রকার স্বার্থের উর্ধে থেকেআমরা সকল প্রকার হিংসা প্রতি হিংসা ভুলে মসজিদের মতএকটি পবিত্র স্থানে বাধা বিপত্তি না রেখে যেন  নামাজের ঘড়টাকে যেন চুরান্ত রুপ দিতে পারি উর্দ্ধতন কর্তিপক্ষের কাছে আমাদের এই আবেদন তাছাড়া এলাকার ধর্মপ্রান মুসল্লিগনের দাবী পাকা মসজিদ নির্মান হোক
বিষয়ে অভিযুক্তর কাছে জানতে চাইলে,অভিযুক্ত মান্নান চৌকিদারের পুত্র মো:মোস্তফা চৌকিদার জানান,আমরা মসজিদ নির্মানে উদ্ধোগীআমরা মসজিদ নির্মানের জন্য জমি ওয়াক্ফা দিয়েছি কমিটির সভাপতির কাছে ভবন নির্মানের জন্য টাকাও দিয়েছি কিন্তু সে ভবন নির্মানের কাজ ঠিকমত করছিল নাআমরা কমিটির সকলকে বিষয়টি জানাই এবং তাকে ঠিকঠাক মত কাজ করতে বলিতাকে আমাদের পুর্ব পুরুষের নামে মসজিদটির নামকরন করতে বললে তারা আমাদের কে বলেন তোরা কারা,এখানে তোদের পুর্ব পুরুষের নামে মসজিদের নাম হবে কেন?তোদের এখানে কোন অধিকার নেই তাই আমরা আমরা মোকাম ঝালকাঠি অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেছি
Post a Comment

Post Bottom Ad

Pages