ঝালকাঠির ডকইয়ার্ডে নির্মাণাধীন লঞ্চের অগ্নিকান্ডস্থল পরিদর্শনে ডিআইজি মারুফ হাসান । - অনলাইন দৈনিক সমবাদ,সত্য সংবাদ প্রকাশে ২৪ঘন্টা,True News publish the 24 hours "Online Daily Samobad"

শিরোনাম

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Wednesday, June 07, 2017

ঝালকাঠির ডকইয়ার্ডে নির্মাণাধীন লঞ্চের অগ্নিকান্ডস্থল পরিদর্শনে ডিআইজি মারুফ হাসান ।

www.samobad.com :: সমবাদ ডট কম ॥

মো: খায়রুল ইসলাম পলাশ ::ঝালকাঠিতে ডকইয়ার্ডে নির্মাণাধীন ওয়াটার বাস এডভেন্সার-  ভয়াবহ অগ্নিকান্ড নাশকতা কঅনা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এমনটি জানিয়েছেন বরিশাল রেঞ্জের ডিআইডি মারুফ হাসান (বিপিএম-পিপিএম) এসময় তিনি জানান, পুলিশের পক্ষ থেকে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। 

বুধবারবার বিকেলে জেলার নলছিটি উপজেলার দপদপিয়া জিরো পয়েন্ট সংলগ্ন পুরাতন ফেরিঘাট এলাকায় নিজাম শিপিং লাইন্সের ডকইয়ার্ডে ভষ্মিভূত  লঞ্চটি পরিদর্শন কালে সাংবাদিকদের বরিশাল রেঞ্জ ডিআইজি কথা বলেন। তিনি আরও জানান, ঘটনায় ঝালকাঠি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল এমএম মাহামুদ হাসানকে প্রধান করে পুলিশের পক্ষ থেকে তিন সদস্যেও একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এসময় উপস্থিত ছিলেন ঝালকাঠি পুলিশ সুপার মো:জোবায়েদুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল এমএম মাহামুদ হাসান নলছিটি থানার ওসি একেএম সুলতান মাহমুদ।

অপরদিকে লঞ্চমালিক লঞ্চ মালিক মো. নিজাম উদ্দিন মৃধা  সাংবাদিকদের জানান, ঘটনায় প্রাথমিক ভাবে জেলার নলছিটি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী দায়ের করা হচ্ছে। ফায়ার সার্ভিসের চুরান্ত রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে  বরিশাল-ঢাকা রুটের জন্য নির্মানাধীন লঞ্চটিতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড ঘটে। সাড়ে যাত্রী ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন লঞ্চটির তৃতীয় তলা পর্যন্ত আগুন লেগে ভারি লোহা ছাড়া আর সব কিছুই পুড়ে ছাই হয়ে যায়। লঞ্চটির প্রায় ৯০ ভাগ কাজ শেষ হয়েছিল বলে জানায় মালিক পক্ষ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাত সাড়ে ৮টার দিকে ডকইয়ার্ডে বিকট শব্দের সাথে আগুনের লেলিহান শিখা ছড়িয়ে পড়েতে দেখা যায়। এলাকাবাসী ফায়ার সার্ভিস খবর পেয়ে দ্রুততম সময়ের মধ্যে ঘটনাস্থলে ছুটে এসে দুই ঘন্টার প্রচেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। কিন্তু ততক্ষণে পুড়ে যায় এডভেন্সার- নামের তিন তলা বিশিষ্ট লঞ্চটি।
এদিকে লঞ্চমালিক পক্ষ ধারণা করছেন, দূর্বৃত্তরা লঞ্চটিকে পরিকল্পিত ভাবে পুড়িয়ে ফেলেছে। এতে ১০ থেকে ১২ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দাবী লঞ্চ মালিক পক্ষের





Post a Comment

Post Bottom Ad

Pages