রাজাপুরে বসত বাড়ীতে আগুুন।আংশিক দুটি এবং পাঁচটি বসত ঘড় পুড়ে ছাই,কোটি টাকার ক্ষয় ক্ষতি। - অনলাইন দৈনিক সমবাদ,সত্য সংবাদ প্রকাশে ২৪ঘন্টা,True News publish the 24 hours "Online Daily Samobad"

শিরোনাম

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Saturday, May 06, 2017

রাজাপুরে বসত বাড়ীতে আগুুন।আংশিক দুটি এবং পাঁচটি বসত ঘড় পুড়ে ছাই,কোটি টাকার ক্ষয় ক্ষতি।

www.samobad.com :: সমবাদ ডট কম ॥ মো:খায়রুল ইসলাম পলাশ ,নিজস্ব প্রতিবেদক  ঃ ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার গাজীর হাট নামক বাজার সংলগ্ন গাজী বাড়ীতে অগ্নী কান্ডে পুরেছে সাতটি বসত ঘড়। । উপজেলার গালুয়া ইউনিয়নের গাজী বাড়ীতে শনিবার সকাল আনুমানিক ১০:৩০ মিনিটে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।খবর পেয়ে ঝালকাঠি ও ভান্ডারিয়ার ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিট প্রায় ১ ঘন্টার চেষ্টার আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। রাজাপুর উপজেলা প্রশাসনের কর্তাব্যরতব্যক্তিরা ঘটনাস্থান পরিদর্শন করেছেন।
ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে পোঁছার আগে ভুক্তভুগীরা আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে গিয়ে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন।আহতরা হলেন নান্নু গাজী(৫৫),মো:হিরু (৪০),আল-আমিন(৪০),ফুল গাজী(৫৫)জলিল খন্দকার(৫০),আতাহার খান(৮০),মঞ্জুর গাজী(৪০),মীর জামাল(৪৫) ও হেমায়েত (৪৫)।আহতদের কাঁঠালিয়া ,ভান্ডারিয়া সহ বিভিন্ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে।
অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ্যরা হলেন,নাসির গাজী, ফারুক গাজী ,রেজোয়ান গাজী, ইউসুফ গাজী, আজাহার গাজী, হিরু খান ও রব গাজী।
এ ঘটনায় আহত নান্নু গাজী জানান,গাজীর হাট এলাকায় এই বড় গাজী বাড়ীতে কাচাঁ,পাকা মিলিয়ে মোট ২০ টি বসতঘড় রয়েছে।এর মধ্যে পাশাপাশি ৭টি টিনের ঘড় রয়েছে এবং ওই ৭ ঘড়ের মধ্যে থেকে ফারুক গাজীর ঘড়থেকে সকাল ১০:৩০ নাগাদ আগুনের সূত্রপাত হয়। আমরা কোন প্রতিকার করার আগেই মুহুর্তের মধ্যে ৭টি ঘড়েই আগুন ছড়িয়ে পড়ে।এতে ২টি ঘড় আংশিক এবং ৫টি ঘড়ের সবাকিছু পুড়ে ছাই হয়ে যায়।তিনি আরো বলেন আমরা প্রাথমিক ভাবে ধারনা করছি ঘড়.ধান,চাল,আসবাকপত্র,নগদ টাকা ও মুল্যবান মালামাল সহ ক্ষতির পরিমান প্রায় কোটি টাকা ছাড়িয়ে যাবে। এ বিষয়ে ফারুক গাজীর পূত্রবধু রোজিনা আক্তার জানান,আমাদের কাঠের ঘড়ের দ্বিতীয় তলায় মোবাইল ফোন চার্জে দেয়া ছিল। সাড়ে ১০টা নাগাদ বাড়ীর উঠান থেকে কেই বলে উঠল ঘড়ের চালে আগুন লেগেছে।আমরা তখনই ঘড় থেকে বেড়ীয়ে যাই।বাইরে বাতাসের কারনে মুহুর্তের মধ্যে পাশের ঘড় গুুলোতেও আগুন ছড়িয়ে পড়ে।আমরা ধারনা করছি মোবাইল চার্জার অথবা বিদ্যুতের তার থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। এ বিষয়ে ঝালকাঠি ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তা মো:সেলিম হোসেন বলেন,প্রাথমিক ভাবে ধারনা করছি বিদ্যুতের তার থেকে আগুনের সুত্রপাত হয়েছে।আমরা ঝালকাঠি ও ভান্ডারিয়া ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হই।এবং অগ্নিকান্ডে ৫টি ঘড় সম্পুন্ন এবং ২টি ঘড় আংশিক পুড়েছে। অগ্নিকান্ডের ব্যাপারে রাজাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ভারপ্রাপ্ত) মো:আনিসুর রহমান বলেন,ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছিএবং ক্ষতিগ্রস্থ্যদের নাম ঠিকানা সংগ্রহ করেছি।আশকরি প্রশাসনের পক্ষ থেকে থুব দ্রুতই ক্ষতিগ্রস্থ্যদের সহায়তা দিতে পারব।
     

Post a Comment

Post Bottom Ad

Pages