রাজাপুরে মুক্তিযোদ্ধার বন্দোবস্তকৃত জমি দখলে পায়তারার অভিযোগ ॥ - অনলাইন দৈনিক সমবাদ,সত্য সংবাদ প্রকাশে ২৪ঘন্টা,True News publish the 24 hours "Online Daily Samobad"

শিরোনাম

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Sunday, May 21, 2017

রাজাপুরে মুক্তিযোদ্ধার বন্দোবস্তকৃত জমি দখলে পায়তারার অভিযোগ ॥


www.samobad.com :: সমবাদ ডট কম ॥
মো:খায়রুল ইসলাম পলাশ,নিজস্ব প্রতিবেদক ঃ ঝালকাঠির রাজাপুরে এক মুক্তিযোদ্ধার বন্দোবস্তকৃত জমি দখলে নেয়ার পায়তারার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার চাড়াখালী গ্রামের রাসেদ হাওলাদার পিতাঃ মৃত আমিন উদ্দীন হাওলাদার এবং তার স্ত্রী জবেদা খাতুনের নামে চাড়াখালী মৌজার ৩০৩১ নং দাগে এক একর একই মৌজার ৩০৩২ নং দাগে পঞ্চাশ শতাংশ সর্বমোট এক একর পঞ্চাশ শতাংশ জমি যাহা ভূমি মন্ত্রনালয় কর্তৃক জারীকৃত /১৩৯৪ নং আদেশে ৯৫ নং অনুচ্ছেদ অনুযায়ী দলিল নং ২৩০৩/৯২- ১৯৯২ সালে ৯৯বছরের বন্দোবস্ত দেয়া হয়। যাহার বন্দোবস্ত মামলা নং- /রা ৯১-৯২। বন্দোবস্ত দেয়ার আগে থেকেই জমি তাদের দখলে রয়েছে এবং অদ্যবধি ভোগ দখল করে আসছে। উক্ত জমির মালিকগন এওয়াজ বদলের মাধ্যমে ভোগদখল করে আসছে।
বাদী মোঃ শাহ আলম হাওলাদার এর দাবীকৃত বন্দোবস্ত মামলা নং ৭৪/রা ৯৫। ভূমি মন্ত্রনালয় কর্তৃক জারীকৃত /১৩৯৪ নং আদেশে ৯৫ নং অনুচ্ছেদ অনুযায়ী দলিল নং ২৮৫-চাড়াখালী মৌজায় ৩০৩১ দাগে ১৯৯৫ সালে ৪০ শতাংশ জমি বন্দোবস্ত দেয়া হয়। অথচ চাড়াখালী মৌজার ৩০৩১ দাগের ৫০শতাংশ জমি ১৯৯২ সালে রাসেদ হাওলাদার তার স্ত্রী জবেদা খাতুনের নামে বন্দোবস্ত দেয়া হয়। ১একর ৫০শতাংশ বন্দোবস্ত কৃত জমি এওয়াজ বদলের মাধ্যমে বীর মুক্তিযোদ্ধ মৃত আঃ গনি হাওলাদার ভোগদখল করে আসছে। বর্তমানে তার ওয়ারিশগন ভোগদখল করে আসছে এবং ৩০৩১ দাগের জমিতে বীর মুক্তিযোদ্ধা আঃ গনি হাওলাদারের পারিবারিক কবরস্থান রয়েছে। যেখানে মুক্তিযোদ্ধা তার স্ত্রীর কবর রয়েছে।
সরোজমিনে গিয়ে দেখা যায় উল্লেখিত জমির কোথাও বসত ঘর বা বর কোনো গাছের নমুনা নাই। এব্যাপারে স্থানীয় ইউপি সদস্য মোঃ বাবুল তালুকদার বলে উক্ত সম্পত্তি অদ্যবাধি জাকির গংরা ভোগদখল করে আসছে। শাহজাহান হাওলাদার মিথ্যা মামলা দিয়ে পেশী শক্তির বলে জবর দখল করার চেষ্টা করে আসছে রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে পুলিশী রিপোর্ট পক্ষে নিছে যা সম্পুর্ন মিথ্যা। বাদীর নং সাক্ষী স্থানীয় জলিল মুন্সিও স্বীকার করেন জাকির গংদের ভোগ দখলীয় জমিতে কোনো ঘর বা বর কোনো গাছ ছিল না এবং বিরোধীয় জমি বিবাদীদের। স্থানীয় আবুল হাসেম(৭৮) ফজলুল হক রাঢ়ী(৭৯) উপরোক্ত বিষয়ে বলেন জমি সংক্রান্ত মিথ্যা মামলা দিয়ে শাহজাহান হাওলাদার জাকির গংদের হয়রানী করে আর্থিক ক্ষতি করে আসছে। আমাদের এই বয়সে জাকিরের পিতা বীর মুক্তিযোদ্ধা মৃত আঃ গনি হাওলাদার বিরোধীয় জমি ভোগ দখল করে আসছে এবং তাহার মৃত্যুর পর তার ওয়ারিশগন ভোগ দখল করে আসছে এবং তাদের মাতা পিতাকে জায়গায়ই পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করেছে। বীর মুক্তিযোদ্ধা মৃত আঃ গনি হাওলাদারের ওয়ারিশ গনের বস বাসের অন্য কোন জায়গা নাই,ভোগ দখলীয় জায়গা  থেকে মৃত আঃ গনি হাওলাদারের সন্তানেরা অসহায় ভয় ভীতির মধ্যে জীবন যাপন করছে।বাদী নানা ভাবে মিথ্যা মামলা দিয়ে অসহায় মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে দখলীয় জায়গা থেকে উৎথাত করার চেষ্টা করছে।       এব্যাপারে বাদীর মামলার আইও রাজাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(তদন্ত) হারুন-অর রশীদ বলেন অনেক দিন পূর্বে এই মামলায় তদন্ত করতে গিয়ে জানতে পারেন যে রাস্তার পাশে ব্যবসায়ীক দোকান ঘর হওয়ায় উভয়ে রাস্তার পাশে জায়গা দাবী করেন। তবে জাকির গংদের পিতা মাতার কবরস্থান হওয়ায় উভয়ের মধ্যে সমজোতার লক্ষে জায়গা বন্টন করে ভোগদখল করলে ভাল হত
Post a Comment

Post Bottom Ad

Pages