আগামি ৫ বছরের মধ্যে বিভিন্ন দেশ থেকে লোকেরা বাংলাদেশে কাজ করতে আসবে,শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু - অনলাইন দৈনিক সমবাদ,সত্য সংবাদ প্রকাশে ২৪ঘন্টা,True News publish the 24 hours "Online Daily Samobad"

শিরোনাম

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Saturday, May 06, 2017

আগামি ৫ বছরের মধ্যে বিভিন্ন দেশ থেকে লোকেরা বাংলাদেশে কাজ করতে আসবে,শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু

www.samobad.com :: সমবাদ ডট কম ॥

 মো:খায়রুল ইসলাম পলাশ,নিজস্ব প্রতিবেদক: শিল্পমন্ত্রী আলহাজ্ব আমির হোসেন আমু বলেছেন, আজকে ডিজিটাল বাংলা সুধু বাংলাদেশের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। সেই ডিজিটাল বাংলার মাধ্যমে গ্রামের মানুষ বিদেশ থেকে টাকা আনতে দিতে পারছে। আজকে বাংলাদেশ সাহায্যের জন্য কারো দ্বারে দ্বারে যাচ্ছেনা। আমাদের কর্মসংস্থান দেখে বিদেশিরা আমাদের বলছে, বাংলাদেশ থেকে তাদের দেশে লোক পাঠাতে। আগামি বছর বিভিন্ন দেশ থেকে লোকেরা বাংলাদেশে কাজ করতে আসবে।
     বাংলাদেশ স্বাধীনতা লাভ করার পর যে লক্ষ উদ্দেশ্যে বঙ্গবন্ধু দেশে স্বাধীনতার জন্য সংগ্রাম করে ছিলেন। তার জীবনের যৌবনের সাড়ে ১২টি বছর পাকিস্তানের কারাগারে নির্যাতন ভোগ করে ছিলেন। দু-দু-বার ফাঁসির মঞ্জের আসামী হয়েছিলেন। বঙ্গবন্ধু যখন তৃতীয় বিপ্লবের কর্মসূচি দিয়ে অর্থনৈতিক মুক্তির লক্ষ্যে পাবাড়িয়ে ছিলেন। ঠিক সেই মুহুর্তে বঙ্গবন্ধুর স্বপরিবারে হত্যা করা হয়েছিল। নিৃশংস হত্যার মধ্যদিয়ে এই দেশকে আবার পিছনের দিকে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। যে পাকিস্থানের হাত থেকে আমরা মুক্তি লাভ করেছিলাম। তাদের সাথে আতাঁত করে একটি রুস কনভেনসন করার পরিকল্পনা করেছিল।
     মুক্তিযুদ্ধের চেতনা মূল্যবোধকে গলা টিপে হত্যা করা হয়েছিল।  জাতীয় চার মূল নীতি ছুড়ে ফেলা হয়েছিল। মন্ত্রী আরো বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা উন্নয়নের লক্ষ্য এগিয়ে যাচ্ছি, পাশাপাশি এদেশের মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা হচ্ছে। তিনি ডিজিটাল বাংলার কথা বলেছিলেন আমাদের বন্ধুরা কৌতুক করতেন ডিজিটাল বাংলা নিয়ে, আসলে সেই কৌতুক বাস্তবরুপ ধারন করেছে।
     আজ সকাল সাড়ে ১১ টায় ঝালকাঠি শিশু পার্কে লানিং এন্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ড শীর্ষক প্রকল্পের মেলার উদ্ধোধন শেষে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিল্পমন্ত্রী এসব কথা বলেন। জেলা প্রসাশক মিজানুল হক চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তাব্য রাখেন লানিং এন্ড আর্নিং প্রকল্প পরিচালক উপ-সচিব মির্জা ¯্রাফ,পুলিশ সুপার মোঃ জোবায়েদুর রহমানপ্রমুখ।
      শিল্প মন্ত্রী ফিতাকেটে পায়রা উড়িয়ে মেলার উদ্ধোদন করে স্টল পরিদর্শন করেন।তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তির বিভাগের আওতায় বাস্তবায়নাধীন লার্নিং এন্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ট শীর্ষক প্রকল্পের উদ্যোগে আয়োজিত মেলায় বিভিন্ন তথ্য প্রযুক্তির ৪০টি স্টল ডিসপ্লে করা হয়েছে।
     এছাড়াও শিল্পমন্ত্রী আলহাজ্ব আমির হোসেন আমু ঝালকাঠি শহরের পুরাতন ষ্টেডিয়ামকে অত্যাধুনিক মিনি ষ্টেয়িামের রুপান্তর কাজের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন করেন। আগামী দিন খেলাধূলা অঙ্গনের সকল ধরনের আধুনিক সুযোগ সুবিধা সম্বলিত স্টেডিয়াম জেলার ক্রীড়াঙ্গনের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা পালন করবে বলে  মন্ত্রী আশাবাদ ব্যক্ত করেন।  সময় জেলা লীগ নেতুবুন্দ প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


Post a Comment

Post Bottom Ad

Pages