ব্লগার নিলাদ্রীর শেষকৃত্য পিরোজপুরে সম্পন্ন - অনলাইন দৈনিক সমবাদ,সত্য সংবাদ প্রকাশে ২৪ঘন্টা,True News publish the 24 hours "Online Daily Samobad"

শিরোনাম

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Sunday, August 09, 2015

ব্লগার নিলাদ্রীর শেষকৃত্য পিরোজপুরে সম্পন্ন

www.samobad.com :: অনলাইন, দৈনিক সমবাদ,প্রতিনিধিঃ ॥ ঢাকায় নিহত ব্লগার নীলাদ্রী চট্টোপাধ্যায়ের (২৬) ওরফে নান্টু এর শেষকৃত্য পিরোজপুর সদর উপজেলার টোনা ইউনিয়নের চলিশা গ্রামে তার নিজ পিতৃভূমিতে শনিবার দিবাগত রাতে সম্পন্ন হয়েছে । হিন্দুশাস্ত্রনুসারে রাত ৩টা ৩০ মিনিটে এ শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়। এর আগে শনিবার রাত ১০টায় পিরোজপুরের নাজিরপুর থেকে পুলিশ প্রহরায় নীলাদ্রী চট্টোপাধ্যায়ের এর কফিন বহনকারী অ্যাম্বুল্যান্সটি  নিলয়ের জন্মস্থান চলিশা গ্রামে এসে পৌছলে তার স্বজনরা ও সহ¯্রাধিক প্রতিবেশীরা ভীড় করেন একনজর নিলয় নীলকে দেখতে। পিরোজপুর সদর উপজেলার টোনা ইউনিয়নের চলিশা গ্রামেরই ছেলে নান্টু।  খুব শান্ত প্রকৃতির ছেলে সে। সবারই কাছেই প্রিয় পাত্র ছিল নীলাদ্রী। চলিশা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষা জীবন শুরু করে তেজদাসকাঠি উচ্চ বিদ্যালয়ে মাধ্যমিক এবং পিরোজপুর সরকারি সোহরাওয়ার্দী কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যামিক শিক্ষা গ্রহন শেষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করেছেন। এরপর কর্মজীবন শুরু করেন তিনি। নীলয় নীল (ফেইসবুক) ও নীল স্টেশন নামের ব্লগের নিয়মিত লেখক। ঢাকায় গণজাগরণ মঞ্চেরও একজন সংগঠক ছিলেন নান্টু।
মাত্র সপ্তাহ দু’য়েক আগে বাড়ী থেকে ঘুরে গেছেন নিলাদ্রী। মা অপর্ণা চট্টোপাধ্যায় ছেলেকে ঢাকায় ফিরে যেতে বারণ করেছিলেন, বলেছিলেন বাড়ীতে বসে বিসিএস পরীক্ষার প্রস্তুতি নিতে। নান্টু বলেছিলেন শ্রীলংকা থেকে ঘুরে এসে বাড়িতে থাকবেন। সেই এলেন তবে লাশ হয়ে। আগে থেকেই হিন্দুশাস্ত্রনুসারে পারিবারিকভাবে শেষকৃত্যর সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করে রেখেছিলেন তার পরিবার । নিলাদ্রী কফিনের মুখ সরাতেই নিলাদ্রী মা অর্পণা রানী আহাজারি ও স্বজনদের কান্নায় ভারি হয়ে ওঠে বাড়ির পরিবেশ ।
নিলাদ্রীর বোন জয়শ্রী চট্টোপাধ্যায় তার অশ্রুসিক্ত চোখে জানান , দু সপ্তাহ আগেও দাদা বাড়িতে এসেছিল, বলেছিল আবারো আসবে কোরবানির ঈদের ছুটিতে। দাদা আর কখনোই আসবে না। গত বৃহস্পতিবারেও দাদার সাথে কথা হয়েছিল, বলেছিলেন অনেক ঝামেলায় আছেন ।
ছেলের শোকে দিশেহারা নিলাদ্রীর মা অপর্ণা চট্টোপাধ্যায় এভাবেই বলছিলেন, এবারে যাবার সময় আমি নান্টুকে ঢাকায় যেতে বারন করেছিলাম, বলেছিলাম বিসিএস পরীক্ষা প্রস্তুতি বাড়ী বসে নিতে। নান্টু (নীলাদ্রী) বলেছিল আসবে, কিন্তু আমার নান্টুতো আর এলো না। জ্বলছিল শেষকৃত্যর চিতার আগুন আর পাশে বসেই প্রায় নির্বাক নীলাদ্রীর বাবা তারাপদ চক্রবর্তী বলছিল আমার আগেই আমার নান্টু চলে গেল। আমার নান্টু রে আইন্যা দে !
এর আগে রবিবার রাত ১২ টা ১৫ মিনিটে নিলাদ্রীর শেষকৃত্যের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়।
তবে সুষ্ঠ বিচারের ব্যাপারে সন্দিহান নীলাদ্রীর পরিবারের। একমাত্র বোন জয়শ্রী হত্যাকারীদের বিচার দাবী করেছেন। নীলাদ্রী আর ফিরে আসবেনা। তবে নীলাদ্রীর হত্যাকারীদের যথাযথ বিচার করলে তার আত্মা শান্তি পাবে আর কিছুটা হলেও শস্তি পাবে এলাকার মানুষ এমনাটাই প্রত্যাশা নীলাদ্রীর  স্বজনদের ।

বার্ত প্রেরক
সৈয়দ বশির আহাম্মেদ
পিরোজপুর প্রতিনিধি
তারিখঃ ০৯/০৮/২০১৫


Post a Comment

Post Bottom Ad

Pages